গুগল ড্রাইভ এর সাথে কীভাবে আপনার পিসি কিংবা ল্যাপটপ সিঙ্ক করবেন?

গুগল ড্রাইভ নিয়ে আজ একটি জরুরী টিপস আপনাদের মাঝে শেয়ার করবো। টিউটোরিয়ালটি একটু বড় হলেও আমাদের সাথেই থাকুন।

যেভাবে ভাইরাসে আক্রান্ত হলাম

বিপদ কখনো বলে কয়ে আসে না। আমি দীর্ঘ ২০ বছর নিজের কম্পিউটার প্রতিষ্ঠানে কর্মরত আছি। এ দীর্ঘ সময়ে অনেক ক্লায়েন্টের কাজ আমাকে করতে হয়েছে।

ফলে সঞ্চিত হয়েছে ফাইলের বিপুল সম্ভার। ক্লায়েন্ট এবং আমার জন্য ফাইলগুলি ছিল খুবই গুরুত্বপূর্ণ সঞ্চয়।

হঠাৎ ২৬ ডিসেম্বর ২০২০ খিস্টাব্দ আনুমানিক দুপুর ২টার দিকে আমার বড় ছেলের একটি পিডিএফ ফাইল ডাউনলোড করতে যাই।

ফাইলটিতো ডাউনলোড হলোই না বরং কম্পিউটার ভিন্ন আচরণ শুরু করলো।

ব্রাউজার ওপেন করলে স্বয়ংক্রিয়ভাবে নতুন নতুন ট্যাব একটার পর একটা ওপেন হতে শুরু করলো।

ভিষণ বিপদে পড়ে গেলাম। দুপুরের খাবার সময় হওয়াতে কম্পিউটার বন্ধ করে মনের দুঃখে বাসায় গেলাম। সারা রাস্তা মাথার ভেতর কিভাবে ভাইরাসটি ডিলিট করবো তা ঘুরপাক খাচ্ছিল।

কোনভাবে দুপুরের খাবার শেষ করে প্রতিষ্ঠানে ফিরে এলাম। এসে কম্পিউটার চালু করলাম।

ভাইরাস আক্রান্তের ফলাফল

এরি মাঝে একজন ক্লায়েন্ট একটি বায়ো-ডাটা টাইপ করাতে আসলো। আমি এম এস ওয়ার্ড ২০১৬ ওপেন করলাম। একটি বায়ো-ডাটার সেম্পল ফাইল ওপেন করতে গিয়েতো আমার চোখ ছানাবড়া।

আমার কম্পিউটারের Resume ফোল্ডারের সকল ফাইলের শেষে .repp এক্সটেইশন যুক্ত হয়েছে। দুরুদুরু বুকে ফাইল ওপেন করলাম। কিন্তু ফাইল ওপেন হয় না।

আরো কয়েকটি ওয়ার্ড ফাইল ওপেন করার চেষ্টা করলাম। কিন্তু কোনটিই ওপেন করতে পারলাম না। ফাইলগুলো কোরাপ্ট হয়ে গেছে।

এবারে আর বুঝতে বাকী রইলো না। ভালো করে সকল ফোল্ডার দেখলাম। আমার পুরো কম্পিউটারের সকল ফোল্ডারের সকল ফাইলের শেষে স্বয়ংক্রিয়ভাবে .repp এক্সটেইশন যুক্ত হয়েছে।

আমার মাথায় যেন বাজ পড়লো। আমার দীর্ঘদিনের সকল ফাইল নষ্ট হয়ে গেল।

মনের ভেতর তোলপাড় করা শুরু করে দিল। মন বলছে কঠিন কম্পিউটার ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছে।

অতপর লক্ষ্য করলাম, প্রতিটি ফোল্ডারে _readme.txt নামে একটি ফাইলটি রয়েছে। ফাইলটি ওপেন করলাম এবং পড়ে বুঝলাম সত্যিই আমি কঠিন ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছি। টেক্সট ফাইলটি নিম্নরূপ:

Virus Text File

হ্যাকার আমার কাছে ৯৮০ ডলার দাবী করে এবং আমার ফাইল ফিরে পাবার প্রাইভেট কী এবং ডেস্কক্রাইব সফ্টওয়্যার দিতে চায়।

হায়রে অফার, এখানে হ্যাকারও আমাকে অফার করে। বলে আমি যদি ৭২ ঘণ্টার ভেতর পরিশোধ করি তবে ৪৯০ ডলার দিলেই চলবে।

কী আর করা! আমার পক্ষে অত টাকা দিয়ে ডকুমেন্ট এবং সফ্টওয়্যার ফিরত পাওয়া সম্ভব না।

অনেক ভেবে চিন্তে অবশেষে গুগুল মামার সাহায্যে সার্চ করা শুরু করলাম।

অবশেষে সার্চ করে জানতে পারলাম ভাইরাসটির নাম ransomware। এর অনেকগুলি প্রজাতি রয়েছে।

গুগল ড্রাইভ ও ভাইরাস থেকে মুক্ত থাকার উপায়

এই মারাত্মক ভাইরাস, প্রতিকার এবং ফাইল রিকভার সম্পর্কে আরও বিস্তারিত জানতে এখানে ক্লিক করে ঘুরে আসতে পারেন।

দু’টি পদ্ধতিতে এই ভাইরাস এফেক্ট করে। একটি লোকালি একটি অনলাইন কী এর মাধ্যমে। তবে যেটুকু জানতে পারলাম আমি যেভাবে এফেক্ট হয়েছি অনলাইন কী দ্বারা।

গুগল ইনফরমেশন হতে জানতে পারলাম এ গ্রুপের অন্যান্য ভাইরাসে আক্রান্ত হলে ফাইল রিকভার করা যায় কিন্তু এ ভাইরাসে আক্রান্ত হলে ফাইল রিকভার করার পদ্ধতি এখনও উদ্ভাবন হয়নি। 

তবে অনেক চেষ্টা করে কোনভাবে প্রায় ৪০% ফাইল রিকভার করতে পারলাম।

তাও আবার বিশাল বিড়ম্বনা। প্রতিটি ফাইলের নাম পরিবর্তন হয়ে গেছে। এখন ওপেন করে করে ফাইল দেখে ফাইলের নাম পুনরায় পরিবর্তন করতে হচ্ছে। সত্যিই এটি একটি বিশাল প্যারা।

যা হোক, অনেক লিখে ফেললাম ভাইরাস নিয়ে।

মূলত আজকের টিউনে আমি কিভাবে আপনার কম্পিউটারের কোন ফোল্ডারকে গুগুল ড্রাইভের সাথে সিঙ্ক করবেন সে বিষয়ে বিস্তারিত ধারণা দেয়ার চেষ্টা করবো।

গুগল ডাইভ এর নিরাপত্তা সম্পর্কে আশা করি কাউকে বলতে হবে না। এখানে আপনার প্রয়োজনীয় ডকুমেন্ট রেখে দিলে কোন দিন ভাইরাস আক্রান্ত হয়ে নষ্ট হবে না কিংবা হারিয়ে যাবে না।

আপনার প্রতিদিনের কাজ করে যদি গুগল ড্রাইভে রেখে দেন তাহলেই হলো।

কিন্তু এ কাজটিও একটি প্যারা। কারণ প্রতিদিন আপলোড করতে হবে।

আবার কোন ফাইল ভুলে না করে থাকলে তা পরে আপলোড করতে হবে।

কিন্তু এমন হলে কেমন হয়?

ধরুন, আপনার কম্পিউটার একটি ফোল্ডার থাকবে। যেখানে আপনি যে কোন ফাইল কিংবা ফোল্ডার রাখলে তা স্বয়ংক্রিয়ভাবে আপনার গুগল ড্রাইভের সাথে সিঙ্ক হয়ে যাবে।

অর্থাৎ আপনার কম্পিউটারের নির্দিষ্ট ড্রাইভের কোন ফোল্ডারে কোন ফাইল রাখলে তা স্বয়ংক্রিয়ভাবে গুগল ড্রাইভে সিঙ্কনাইজ হবে।

আমার মনে হয়, তাহলে ভালই হয়। প্রথমেই জেনে নেয়া যাক-

গুগল ড্রাইভ কিভাবে ব্যবহার করবেন?

  • মূলত গুগল ড্রাইভ হলো অনলাইন স্পেস। যা গুগল আপনাকে ফ্রিতে ১৫ গিগাবাইট দিয়ে থাকে।
  • এখানে ফাইল, পিডিএফ, ইমেজ বা ফটো, ভিডিও, মাইক্রোসফ্ট অফিস এর সকল ফাইল ইত্যাদি স্টোর করা যায়।
  • Gmail এর মাধ্যমে পাঠানো ই-মেইলও সরাসরি Google ড্রাইভে স্টোর করা যায়।

গুগল ড্রাইভে ফাইল সংরক্ষণের কিছু নিয়ম-কানুন

  • ফাইল এর সাইজ: গুগল ড্রাইভে আপনি সংরক্ষণ করতে পারেন এমন সর্বোচ্চ ফাইল মাপ নীচে রয়েছে:
  • ওয়ার্ড ডকুমেন্ট: সর্বোচ্চ ১.০২ মিলিয়ন অক্ষর পর্যন্ত। অর্থাৎ উর্দ্ধে 50 এমবি হতে হবে।
  • স্প্রেডশীট ডকুমেন্ট: এক্ষেত্রে সর্বোচ্চ ৫ মিলিয়ন সেল অর্থাৎ ১৮,২৭৮টি কলাম সংরক্ষণ করা যাবে।
  • পাওয়ারপয়েন্ট প্রেজেনটেশন: প্রেজেন্টেশনটি সর্বোচ্চ ১০০ এমবি হতে হবে।
  • গুগল সাইট (নতুন): প্রতি পৃষ্ঠায় ২,০০,০০০টির বেশি অক্ষর; ১০,০০০টি চিত্র (প্রতি সাইটে) এবং এক হাজার পৃষ্ঠা পর্যন্ত (সর্বাধিক ১ মিলিয়ন অক্ষর), তাছাড়া অন্যান্য সমস্ত ফাইল ৫ টেরাবাইট পর্যন্ত।
  • সমর্থিত ফাইলের ধরণ: যে কোনও ফাইল টাইপ ড্রাইভে সংরক্ষণ করা যেতে পারে। নিম্নে বিস্তারিত বর্ণিত হলো:

গুগল ড্রাইভ সমর্থিত ফাইলসমূহ

সাধারণ ফাইলসমূহ:

  • আর্কাইভ ফাইল (.ZIP, .RAR, tar, gzip)
  • অডিও ফাইল (MP3, MPEG, WAV, .ogg, .opus)
  • ভিডিও ফাইল (WebM, .MPEG4, .3GPP, .MOV, .AVI, .MPEGPS, .WMV, .FLV, .ogg)
  • ইমেজ ফাইল (.JPEG, .PNG, .GIF, .BMP, .TIFF, .SVG)
  • টেক্সট ফাইল (.TXT)
  • মার্কআপ / কোড (.CSS, .HTML, .PHP, .C, .CPP, .H, .HPP, .JS, .java, .py)

অ্যাডোব ফাইলসমূহ:

  • অটোডেস্ক অটোক্যাড (.DXF)
  • ইলাসট্রেটর (.AI)
  • ফটোশপ (.PSD)
  • পোর্টেবল ডকুমেন্ট ফরমেট (.PDF)
  • পোস্টস্ক্রিপ্ট (.EPS, .PS)
  • স্কেলেবল ভেক্টর গ্রাফিক্স (.SVG)
  • ট্যাগযুক্ত চিত্র ফাইল ফর্ম্যাট (.TIFF)
  • ট্রু টাইপ (.TTF)

মাইক্রোসফ্ট ফাইল:

  • ওয়ার্ড (.DOC এবং .DOCX)
  • এক্সেল (.XLS এবং .XLSX)
  • পাওয়ারপয়েন্ট (.PPT এবং .PPTX)
  • এক্সএমএল পেপার স্পেসিফিকেশন (.XPS)

Google Drive এর সুবিধা এবং লাভসমূহ

  • আপনার প্রয়োজনীয় ফাইল কিংবা ইমেজসমূহ গুগল ড্রাইভে সংরক্ষণ করা যাবে ফলে আপনার কম্পিউটার কিংবা মোবাইল এর ডাটা সংরক্ষণ ক্যাপাসিটি বৃদ্ধি থাকবে।
  • পরবর্তীতে আপনার সংরক্ষিত ফাইলসমূহ স্মার্টফোন কিংবা কম্পিউটার কিংবা গুগল ড্রাইভ ব্যবহার করে পুনরায় সহজে ডাউনলোড করা যাবে।
  • গুগল ডাইভে সংরক্ষিত ফাইলসমূহ আপনার একাউন্ট থেকে যে কোন কাউকে শেয়ার করতে পারবেন এবং ফাইলটি ডাউনলোড করতে পারবেন।
  • সর্বোচ্চ ফ্রিতে ১৫ গিগাবাইট পর্যন্ত ফাইল রাখা যাবে। প্রয়োজনে বিজনেজ একাউন্ট ব্যবহার করে আরও বেশি স্টোরেজ পেতে পারেন।
  • আপনি যতদিন না ফাইল গুলি নিজের গুগল ড্রাইভ একাউন্ট থেকে ডিলিট করবেন, সেগুলি আপনার গুগল একাউন্টে স্টোর হয়েই থাকবে। মোবাইল চুরি হয়ে গেলেও বা কম্পিউটার খারাপ হয়ে গেলেও আপনার ছবি বা ফাইল নিরাপদ ভাবে সেখানে থাকবে।
  • গুগল ড্রাইভ এ্যাপসটি মোবাইল, ডেস্কটপ কিংবা লেপটপ যে কোন ডিভাইসের জন্য ফ্রিতে ডাউনলোড করে নিতে পারবেন।
  • অনলাইন এবং অফলাইন উভয় স্থানেই এটি ব্যবহার করা যায়।
  • এ এ্যাপস ব্যবহার করে ওয়ার্ড, এক্সেল ও পাওয়ারপয়েন্ট ফাইল তৈরি করতে পারবেন।
  • আপনার ব্লগটি স্বয়ক্রিয়ভাবে গুগল ড্রাইভে স্বয়ংক্রিয়ভাবে ব্যাকআপ নিতে পারবেন।
  • কম্পিউটারের নির্দিষ্ট ড্রাইভের নির্দিষ্ট ফোল্ডারে কোন ফাইল স্বয়ংক্রিয়ভাবে গুগল ড্রাইভে আপডেট করতে পারবেন।

কিভাবে কম্পিউটারের কোন ফোল্ডার গুগল ড্রাইভে স্বয়ংক্রিয়ভাবে আপডেট করবেন?

এবারে শুরু করতে যাচ্ছি আমাদের মূল টিউটোরিয়াল।

ধরুন, কম্পিউটারের G ড্রাইভের Google Drive Backup নামক ফোল্ডারটিকে গুগল ড্রাইভের সাথে সিঙ্ক করাতে চাই।

অর্থাৎ Google Drive Backup ফোল্ডারটিতে গুগল ড্রাইভ সমর্থিত কোন ফাইল রাখলে তা স্বয়ংক্রিয়ভাবে গুগল ড্রাইভে আপডেট হবে।

নোট: গুগল ড্রাইভ সমর্থিত ছাড়া ভিন্ন ফাইল দিলে আপডেট বন্ধ হয়ে যাবে। ফলে কম্পিউটারের সিলেক্টকৃত ড্রাইভটি লাল ক্রস চিহ্নে চিহ্নিত হবে।

কম্পিউটারের নির্দিষ্ট ফোল্ডারের সাথে গুগল ড্রাইভ সিঙ্ক করতে নিম্নের ধাপসমূহ অনুসরণ করুন:

ফাইল ডাউনলোড ও ইন্সটল করা:

  • প্রথম Backup and Sync tool ফাইলটি ডাউনলোড করতে হবে। তবে এক্ষেত্রে Backup and Sync ডাউনলোড করতে হবে।

Google drive sync file download

  • এবারে ওপরের চিত্র হতে Download ক্লিক করুন।
  • লক্ষ্য করুন, নিচের মত ডায়ালগ বক্স প্রদর্শিত হচ্ছে।

Accept for download google sync

  • অতপর, ওপরের চিত্র Agree and download ক্লিক করুন।
  • ফাইলটি ডাউনলোড হয়ে গেলে ফাইলটি ইন্সটল করার জন্য ফাইলের ওপর ডাবল ক্লিক করুন।

গুগল ড্রাইভ রান করা [Run google drive sync installer]

  • পুনরায় কিছু ফাইল ডাউনলোড হয়ে স্বয়ংক্রিয়ভাবে ইন্সটল শুরু হবে। নিচের চিত্রটি লক্ষ্য করুন।

Download and auto install google drive sync

  • অতপর Installation Complete বার্তা প্রদর্শিত হলে Close ক্লিক করুন।

গুগল ড্রাইভ ডাউনলোড ও ইন্সটল করা [Complete download and finish]

নোট: পূর্ব থেকে যদি গুগল ড্রাইভ ইন্সটল করা থাকে তবে চিন্তার কোন কারণ নেই। স্বয়ংক্রিয়ভাবে আপডেট হয়ে যাবে, এক্ষেত্রে আনইন্সটল করার প্রয়োজন নেই। কম্পিউটার রিস্টার্ট করার বার্তা প্রদর্শিত হবে। কিন্তু এক্ষেত্রে রিস্টার্ট করার কোন প্রয়োজন নেই। রিস্টার্ট করা ছাড়াই সবকিছুই ঠিকমতই চলবে।

গুগল ড্রাইভে সংরক্ষণের জন্য কম্পিউটার এর ফোল্ডার নির্বাচন করা

এবারে Welcome to Backup and Sync এর ডায়ালগ বক্স প্রদর্শিত হবে।

গুগল ড্রাইভ ওয়েলকাম উইন্ডো [Welcome to Backup and Sync]

  • ওপরের চিত্র হতে Get Start ক্লিক করুন।
  • অতপর Choose folders from your computer to continuously back up to Google Drive প্রদর্শিত হলে GOT IT ক্লিক করুন।

Choose folders from your computer to continuously

  • Welcome to Backup and Sync (Step 1 of 3) এর ডায়ালগ বক্স প্রদর্শিত হবে।
  • এবারে আপনাকে তিনটি ধাপ পার হতে হবে।
  • প্রথমেই আপনার ভেলিড ইমেইল এড্রেস ও পাসওয়ার্ড দিয়ে সাইন ইন করুন।
  • দ্বিতীয় ধাপে কম্পিউটারের প্রয়োজনীয় ফোল্ডার সিলেক্ট করতে হবে।

Choose Folder from your computer for sync

  • ওপরের চিত্রের Choose folders from your computer ক্লিক করে যে কোন ফোল্ডার সিলেক্ট করতে পারবেন।

গুগল ড্রাইভ এর জন্য ফোল্ডার নির্বাচন [Choose any folder from your computer]

  • কম্পিউটারের ফোল্ডার সিলেক্ট করে Next বাটন ক্লিক করুন।

গুগল ড্রাইভ সিঙ্কনাইজ করা

লক্ষ্য করুন, নিচের মত চিত্র প্রদর্শিত হবে।

  • ওপরের চিত্র হতে GOT IT সিলেক্ট করুন।
  • নিচের চিত্র মত ডায়ালগ বক্স প্রদর্শিত হবে।

গুগল ড্রাইভ সিঙ্কনাইজ করা [Google Drive Sync]

  • এবারে প্রয়োজনীয় অপশনসমূহ নির্ধারণ করুন এবং START বাটন ক্লিক করুন।
  • হয়ে গেল আপনার কম্পিউটার কিংবা ল্যাপটপের সিলেক্টকৃত ফোল্ডারের সাথে গুগল ড্রাইভের সিঙ্ক।

এবারে আপনার কম্পিউটারের যে কোন ফাইল নির্দিষ্ট সিলেক্টকৃত ফোল্ডারে রাখলে তা স্বয়ংক্রিয়ভাবে আপডেট হয়ে যাবে।

মজার কথা হলো, এখন আপনি আপনার গুরুত্বপূর্ণ ফাইল নিয়ে সম্পূর্ণ নিরাপদ।

নোট: একটি বিষয় খেয়াল রাখতে হবে যে গুগল একাউন্ট দিয়ে গুগল ড্রাইভ সিঙ্ক করেছেন তা লগইন করা থাকতে হবে।

দীর্ঘক্ষণ টিউনটি পড়ার জন্য আপনার অশেষ ধন্যবাদ। কষ্ট হলেও কাজটি করে নিলে আপনার কষ্টে তৈরি করা ডকুমেন্ট যে কোন ভাইরাস হতে ১০০% নিরাপদ।

পরবর্তী টিউন দেখার আমন্ত্রণ জানিয়ে এখানেই শেষ করছি। টিউটোরিয়ালটি ইনফরমেশন সম্বলিত হলে পরিচিত মহলে শেয়ার করুন।

 1,871 total views,  15 views today

Related

Spread the love

Leave a Comment